সিয়াটল আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে বাংলাদেশের ছবি ‘নোনাজলের কাব্য’

সিয়াটল আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে বাংলাদেশের ছবি ‘নোনাজলের কাব্য’

শেয়ার করুন

nona-joler-kabyo-160920-92

৪৭তম সিয়াটল আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ‘নিউ ডিরেকটরস কম্পিটিশন’ বিভাগে আমন্ত্রিত হয়েছে ‘নোনাজলের কাব্য’। যুক্তরাষ্ট্রের মর্যাদাপূর্ণ এই চলচ্চিত্র উৎসব ৮ এপ্রিল থেকে শুরু হয়ে চলবে ১৮ এপ্রিল পর্যন্ত। এর ভেতর দিয়ে উত্তর আমেরিকায় প্রিমিয়ার হবে রেজওয়ান শাহরিয়ার পরিচালিত এই ছবির।

এর আগে ১১টি উৎসবে দেখানো হয়েছে ‘নোনাজলের কাব্য’। এগুলোর ভেতর লন্ডন, বুসান, গুটেনবার্গ, টরিনো, সিঙ্গাপুরসহ বেশ কিছু উৎসব খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এর ভেতর কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে নেটপ্যাক অ্যাওয়ার্ড জিতেছে ‘নোনাজলের কাব্য’।

 সিনেমাটা এসব উৎসবে ঘুরলেও করোনা পরিস্থিতিতে পরিচালক বা এই ছবির অভিনয়শিল্পীদের যাওয়া হয়নি কোথাও। তাই বড় পর্দায় ছবিটি এখনো দেখা হয়ে ওঠেনি পরিচালকেরও। বললেন, ‘বুসান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে সিনেমাটার প্রিমিয়ারের পর ওরা অনলাইনে দর্শকদের সঙ্গে একটা প্রশ্নোত্তর পর্বের আয়োজন করেছিল। সেখানে হঠাৎ করে আমার একটা বন্ধুর দেখা পেলাম। সে সিউল থেকে বুসানে এসেছে আমার ছবিটা দেখার জন্য। ও আমার নিউইয়র্ক ইউনিভার্সিটির টিশ স্কুল অব দ্য আর্টসের বন্ধু। আমি দীর্ঘদিন যুক্তরাষ্ট্রে থেকেছি। তাই সিয়াটল উৎসব আমার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। ওখানে আমার সিনেমাজীবনের বর্ধিত পরিবারের অনেকেই আছেন।’
210125181836069307
ছবি মুক্তির বিষয়ে বললেন, ‘এখনো আমরা ভাবছি, ঈদুল ফিতরের পরপরই ছবিটি মুক্তি দেব। করোনা বাস্তবতায় কত দূর কী হয়, দেখা যাক। বুঝতেই পারছেন, পরিস্থিতি ভালো নয়। সিনেমা হলও বন্ধ হয়ে যাচ্ছে একের পর এক। তাই সবকিছুই অনিশ্চিত।’
জেলেপাড়ার জীবন নিয়ে এই ছবিতে অভিনয় করেছেন ফজলুর রহমান বাবু, শতাব্দী ওয়াদুদ, তাসনুভা তামান্না, অশোক ব্যাপারী, তিতাস জিয়া, আমিনুর রহমানসহ অনেকে।
ছবির সংগীতায়োজন করেছেন শায়ান চৌধুরী অর্ণব। ‘স্ক্রিন ইন্টারন্যাশনাল’, ‘সাইট অ্যান্ড সাউন্ড’ সাময়িকী এবং ‘দ্য আপকামিং’-এর মতো গুরুত্বপূর্ণ প্ল্যাটফর্মগুলো এই সিনেমার রিভিউ করেছে। তবে ২০১৮ সালের ১৩ জুলাই অর্ধশতাধিক শিল্পী ও কলাকুশলী মিলে ঘোর বর্ষায় পটুয়াখালী ও চট্টগ্রামে শুটিং শুরু হয়ে শেষ হয় অক্টোবরের ৩ তারিখে।