জাতিসংঘ মহাসচিব ও বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্টের সফর: রোহিঙ্গা ব্যয় সমস্যা সমাধানের প্রত্যাশা

জাতিসংঘ মহাসচিব ও বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্টের সফর: রোহিঙ্গা ব্যয় সমস্যা সমাধানের প্রত্যাশা

শেয়ার করুন

Jim-Yong-Kim-Guterresনিজস্ব প্রতিবেদক :

রোহিঙ্গাদের পেছনে যে বিশাল ব্যয় হচ্ছে তা যোগাড়ে নতুন অগ্রগতি হবে জাতিসংঘ মহাসচিব এবং বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট এর বাংলাদেশ সফরের মাধ্যমে। এমনটাই প্রত্যাশা করছে বাংলাদেশ। পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক জানিয়েছেন, এই সফরের পর নতুন করে বিশ্ববাসীর কাছে আর্থিক সাহায্য আহ্বান করতে পারে জাতিসংঘ।

বাংলাদেশে আসা ৯ লাখ রোহিঙ্গার জন্য এ বছরেই ৯৫ কোটি ১০ লাখ মার্কিন ডলার খরচ হবে বলে বছরের শুরুতে জানিয়েছিল জাতিসংঘের শরনার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর। বছরের প্রায় মাঝামাঝিতে তাঁরা জানায় ২৩ কোটি ৪০ লাখ ডলারও যোগাড় হয়নি এখনও। ঠিক এরকম সময় জাতিসংঘের মহাসচিব ও বিশ্বব্যাংকের প্রধান একসঙ্গে আসছেন রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে।

প্রেসিডেন্ট এর এই সফরের আগ মূহূর্তেই অবশ্য বিশ্বব্যাংক ঘোষণা দিয়েছে তাঁরা রোহিঙ্গা সংকটে ৪৮ কোটি ডলার সাহায্য দেবে। যদিও শুরুতে তাঁরা অনুমোদেন করেছে ৫ কোটি ডলার। বিশ্বব্যাংকের পুরো টাকাটা পাওয়া গেলেও এ বছরেই রোহিঙ্গাদের জন্য প্রয়োজন হবে আরও অন্তত ২৩ কোটি ৭০ লাখ ডলার বা ১ হাজার ৯ শ কোটি টাকা।

বাংলাদেশ আশা করছে মহাসচিবের কক্সবাজার সফরের পর এই টাকা যোগাড় করতে নতুন করে বিশ্ব বাসীর কাছে আহ্বান করবে জাতিসংঘ।

আর্থিক সংস্থানের পাশাপাশি এই সফর রোহিঙ্গা সংকটের সমাধানে নতুন দৃষ্টিকোণ তৈরি করবে বলেও আশা করছেন পররাষ্ট্র সচিব।

রোহিঙ্গা সংকটের পাশাপাশি দুই ভিভিআইপির সফরে গুরুত্ব পাচ্ছে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক অর্থনৈতিক উন্নতি এবং এসডিজি অর্জনের সাফল্য।