হিন্দুদের ওপর সহিংসতার প্রতিবাদে শাহবাগে চার ঘন্টা অবরোধ

হিন্দুদের ওপর সহিংসতার প্রতিবাদে শাহবাগে চার ঘন্টা অবরোধ

শেয়ার করুন

shahbag

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

দেশের বিভিন্ন স্থানে পূজামণ্ডপ, মন্দির ও হিন্দুদের ঘরবাড়ি এবং ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীর সহিংস হামলার ঘটনার প্রতিবাদে রাজধানীর শাহবাগ মোড়ে চার ঘন্টা অবরোধ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এসময় তারা এসব ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ করে তারা। এসময় সাত দফা দাবি বাস্তবায়নে ২৪ ঘণ্টা সময় বেঁধে (আলটিমেটাম) দিয়ে পৌনে চার ঘণ্টা পর শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে নিয়েছেন।

এদিকে অবরোধ চলাকালে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে দেখা দেয় তীব্র যানজট। তবে অবরোধ তুলে নেয়ার পর শাহবাগে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

আজ সোমবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে শাহবাগ মোড়ের রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের একটি অংশ। পরে শিক্ষকেরা তাদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেন।

কয়েক শ শিক্ষক-শিক্ষার্থীর অবরোধ-বিক্ষোভের কারণে শাহবাগ থেকে পল্টন, সায়েন্স ল্যাব, বাংলামোটর ও টিএসসি অভিমুখী সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বেলা সোয়া দুইটার দিকে অবরোধ তুলে নেওয়া হয়৷

এই কর্মসূচি থেকে শিক্ষার্থীরা সরকারের কাছে সাত দফা দাবি জানান। এগুলো হলো: হামলার শিকার মন্দিরগুলোর শিগগিরই প্রয়োজনীয় সংস্কার করা, বসতবাড়ি ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে লুটপাটের ক্ষতিপূরণ দেওয়া, ধর্ষণ ও হত্যার শিকার পরিবারগুলোকে স্থায়ী ক্ষতিপূরণ দেওয়া ও দোষী ব্যক্তিদের শাস্তি নিশ্চিত করা, জাতীয় সংসদে আইন প্রণয়নের মাধ্যমে মন্দির ও সংখ্যালঘুদের বাসাবাড়িতে সাম্প্রদায়িক হামলার দায়ে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা, সংখ্যালঘু মন্ত্রণালয় ও কমিশন গঠন, হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টকে আধুনিকায়ন করে ফাউন্ডেশনে উন্নীত করা এবং জাতীয় বাজেটে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের জন্য জিডিপির ১৫ শতাংশ বরাদ্দ করা।