শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভে উত্তাল রামপুরা, দাবি ১১ দফা

শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভে উত্তাল রামপুরা, দাবি ১১ দফা

শেয়ার করুন

Rampura

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

রাজধানীর রামপুরায় বাসচাপায় এসএসসির ফলপ্রত্যাশী মাঈনুদ্দিন নিহত হওয়ার ঘটনার বিচার চেয়ে দ্বিতীয় দিনের মতো মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করছে শিক্ষার্থীরা। সেখান থেকে ১১টি দাবি জানিয়েছে তারা।

দ্বিতীয় দিনের মতো বুধবার বেলা সাড়ে এগারোটার দিকে ওই এলাকার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা সড়কে অবস্থান নেয়। এরপর দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তারা দাবিগুলো তুলে ধরে।

রামপুরা ব্রিজ এলাকায় অবস্থান নেওয়া শিক্ষার্থীরা সড়কে চলাচলকারী যানবাহনের কাগজপত্র ঠিক আছে কি না, তা যাচাই করে দেখছেন। তবে তাঁরা সড়ক অবরোধ করেননি।

শিক্ষার্থীদের অবস্থানের কারণে সংশ্লিষ্ট সড়ক দিয়ে ধীরগতিতে যানবাহন চলছে। এতে সড়কের উভয় পাশে যানজট সৃষ্টি হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বেলা সোয়া ১১টায় শিক্ষার্থীরা রামপুরা ব্রিজ এলাকায় জড়ো হতে শুরু করেন।

দুপুর ১২টার দিকে ঘটনাস্থলে কয়েক শ শিক্ষার্থীকে আন্দোলন কর্মসূচিতে অংশ নিতে দেখা যায়।

রামপুরা ব্রিজ এলাকায় একরামুন্নেছা স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ইম্পিরিয়াল কলেজ, ন্যাশনাল আইডিয়াল কলেজ, আলাতুন্নেছা স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ক্যামব্রিয়ান কলেজ, গুলশান কমার্স কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা আন্দোলন কর্মসূচিতে অংশ নিচ্ছেন।

তাদের উল্লেখযোগ্য দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে: তাদের দাবিগুলো হলো:

১. সড়কে নির্মম কাঠামোগত হত্যার শিকার নাঈম ও মাঈনুদ্দিনের হত্যার বিচার করতে হবে। তাদের পরিবারকে যথাযথ ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। গুলিস্তান ও রামপুরা ব্রীজ সংলগ্ন এলাকায় পথচারী পারাপারের জন্য ফুটওভারব্রিজ নির্মাণ করতে হবে।

২. সারাদেশের সব গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া সরকারি প্রজ্ঞাপন দিয়ে নিশ্চিত করতে হবে। হাফ ভাড়ার জন্য কোনো সময় বা দিন নির্ধারণ করে দেওয়া যাবে না। বর্ধিত বাস ভাড়া প্রত্যাহার করতে হবে। সব রুটে বিআরটিসির বাসের সংখ্যা বৃদ্ধি করতে হবে।

৩. গণপরিবহনে ছাত্র-ছাত্রী এবং নারীদের জন্য অবাধ যাত্রা ও সৌজন্যমূলক ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে।