পিরোজপুরে গড়ে উঠেছে আমড়ার পরিকল্পিত বাগান

পিরোজপুরে গড়ে উঠেছে আমড়ার পরিকল্পিত বাগান

শেয়ার করুন

247669_168পিরোজপুর প্রতিনিধি ;

আসছে আমড়ার মৌসুম। পিরোজপুরে গড়ে উঠেছে আমড়ার পরিকল্পিত বাগান। জেলাটিতে এবারও ফলন ভালো হয়েছে। চাহিদা ও বাজার দর ভালো থাকায় খুশি পিরোজপুরে আমড়া চাষীরা।

বরিশালের আমড়ার সুখ্যাতি আছে, কদরও খুব। আসলে বরিশালের আমড়া বলতে আমরা যা বুঝি, তা মূলত পিরোজপুর ও পাশের জেলা ঝালকাঠির আমড়া। পিরোজপুর জেলার ৭ উপজেলার সবখানেই আমড়ার চাষ হয়। সদর উপজেলা, নাজিরপুর, কাউখালী, মঠবাড়িয়া ও নেছারাবাদের গাছে গাছে এখন এই টক-মিষ্টি ফলটির সমারোহ।

নদী বেষ্টিত পিরোজপুরের মিষ্টি পানি আর উর্বর মাটির জন্য এখানকার আমড়া সুস্বাদু ও আকারে বড়। আগে বাড়ির আঙিনায় বা রাস্তার আশ-পাশেই সাধারণত গাছ জন্মাত। সার-কীটনাশক বা বিশেষ যত্ন-আত্তি লাগে না। দিন দিন বাড়ছে চাহিদা, লাভও বেশি। ফলে, গত ১০ ধরে তাই পিরোজপুরে গড়ে উঠছে বাণিজ্যিক বাগান।

গাছ রোপণের মাত্র ৩ বছরের মধ্যে ফল পাওয়া যায়। বিক্রির দুশ্চিন্তা নেই। পাইকাররা গাছচুক্তিতে ফল কিনে নেয়। তাদের মাধ্যমে আড়ত। সেখান থেকে সারা দেশ। ভিটামিন-সি ও ক্যারোটিন সমৃদ্ধ এবং রাসায়নিকমুক্ত ফলটি এখন গ্রামবাসীর আর্থিক সহায়।

পিরোজপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আবু হেনা মোহাম্মদ জাফর বলেন, পরিকল্পিত আমড়া চাষ এবং ভালো ফলনে তারা সন্তুষ্ট।

‘আমড়া কাঠের ঢেঁকি’, তুচ্ছ-অর্থে এই বাগধারাটি ব্যবহার করা হলেও, আমড়ার অম্ল-মধুর স্বাদ বাঙালির বড় প্রিয়।