‘বাধা না এলে বিএনপির স্মরণকালের বড় সমাবেশ হবে’

‘বাধা না এলে বিএনপির স্মরণকালের বড় সমাবেশ হবে’

শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক:

দীর্ঘ ১৮ মাস পর রাজধানীতে জনসভার অনুমতি পাচ্ছে বিএনপি, তাও আবার তাদের প্রথম পছন্দের ভেন্যু সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে। নেতাদের দাবি কোনো বাধা না এলে বিএনপির স্মরণকালের বড় সমাবেশ হবে। প্রতিক্ষীত এ সমাবেশে কী বলবেন দলপ্রধান খালেদা জিয়া?

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সর্বশেষ সমাবেশ করেছিলেন গত বছরের ৫ মে।

এরপর কেটে গেলো প্রায় দেড় বছর। বারবার নানা ইস্যুতে সমাবেশ করতে চেয়েছে দলটি, কিন্তু নানা কারণ দেখিয়ে অনুমতি দেয়নি প্রশাসন। কখনো আবার অনুমতি পেলেও সঙ্গে ছিলো শর্ত। সব মিলিয়ে মন খুলে সভা-সমাবেশ করতে না পারার আক্ষেপই নেতারা করে গেছেন দেয়ালঘেরা প্রতিটি অনুষ্ঠানের বক্তব্যে।

তবে অপেক্ষা আর ধৈর্যের পালা শেষে রোববার হতে চলেছে খোলা ময়দানে খালেদা জিয়ার জনসভা। অন্তত এখনো পর্যন্ত অনুমতির সবুজ সঙ্কেত রয়েছে। তাই কাঙ্ক্ষিত ভেন্যু সোহরাওয়ার্দী উদ্যান দফায় দফায় পরিদর্শন করছেন নেতারা। তিনমাস লন্ডনে অবস্থান শেষে দেশে ফিরে রোহিঙ্গাদের দেখতে কক্সবাজার সফর, এরপর এ সভা।

কী বলবেন বেগম জিয়া? শুধুই কি নিজেদের চাওয়া-পাওয়ার অমিলের গল্প, নাকি ভিন্নকিছু? গত বছরের ৫ মে’র আগে খালেদা জিয়া জনসভা করেন ৫ জানুয়ারি, নয়াপল্টনে। তার আগের বছর, অর্থাৎ- ২০১৫ সালের ১৯ মার্চ ষষ্ঠ জাতীয় সম্মেলন করেন ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে।

আর তারও আগে, সোহরাওয়ার্দীতে তার সর্বশেষ সমাবেশটি হয় ২০১৪ সালের ২০ জানুয়ারি। যার মাত্র ১৫ দিন আগে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন জেতে আওয়ামী লীগ এবং ক্ষমতায় বসে টানা দ্বিতীয় দফায়।