নানা আয়োজনে চলছে বসন্তের আবাহন

নানা আয়োজনে চলছে বসন্তের আবাহন

শেয়ার করুন
munira spring
মুনিরা জামান। শিক্ষার্থী ড্যাফোডিল আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়।

নিজস্ব প্রতিবেদক:

আজ পহেলা ফাল্গুন। বাংলা পঞ্জিকার একাদশতম মাস ফাল্গুনের প্রথম দিন। ঋতুরাজ বসন্তের সূচনাদিন। প্রকৃতির দখিনা দুয়ারে নতুন হাওয়া, কোকিলের ডাক আর ফুলে ফুলে ভ্রমরের মিতালী জানান দিচ্ছে বসন্ত এসে গেছে।তাইতো ফাগুনের আগুন রাঙা রঙে, তরুণ মনকে উদাস করে তুলছে।

প্রকৃতির এ নতুন রূপকে সমাদরে বরণ করে নিতে, বিভিন্ন জায়গায় আয়োজন করা হয়েছে নানা আয়োজন। সুরে-তালে চলছে বসন্তের আবাহন। সূচনালগ্নে নতুন রূপে সাজতে গাছেরাও হচ্ছে প্রস্তুত। প্রকৃতিতে অনুরণিত হচ্ছে ঝরাপাতার গান। প্রিয় ঋতু বসন্ত জরামুক্ত করে থাকে মানুষের দেহ-মনকে।

বর্ণিল আয়োজনে দেশের প্রায় প্রান্তেই উদযাপিত হচ্ছে ঋতুরাজ বসন্তের প্রথম দিন, পহেলা ফাল্গুন। শীতের অলসতা ঝেড়ে ফেলে বসন্তবরণ করেছে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণোচ্ছল তরুণ-তরুণীরা। একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করেন তারা।

বরিশালে সরকারি মহিলা কলেজের ঐতিহাসিক বকুলতলায়ও অনুষ্ঠিত হয়েছে বসন্তবরণ অনুষ্ঠান। শিক্ষার্থীদের নাচে-গানে মুখর হয়ে ওঠে কলেজ ক্যাম্পাস।ঝিনাইদহ শহরে মর্নিং বেল চিল্ড্রেন একাডেমি স্কুলে পিঠা মেলার আয়োজন করা হয়। শিক্ষার্থী, তাদের অভিভাবক এবং স্কুলের শিক্ষকরা বিভিন্ন স্টলে পিঠার পসরা সাজিয়ে আনন্দে মেতে ওঠেন।

লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয় বসন্ত উৎসব। গানের সুর, নৃত্যের তাল আর বাদ্যের ঝংকারে মুখরিত হয় পুরো ক্যম্পাস। নওগাঁয় জাতীয় রবীন্দ্র সঙ্গীত সম্মিলন পরিষদ উদ্যোগে সমবায় চত্বরে বসে বসন্তকে বরণ করার আয়োজন। গান ও নৃত্য পরিবেশন করেন শিল্পীরা। এছাড়া রাজবাড়ী, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা ও ঝালকাঠিতে নানা আয়োজনে উদযাপিত হচ্ছে বসন্তবরণ উৎসব।

হানাহানি, হিংসা-বিদ্বেষ ভুলে, চারপাশ হয়ে উঠুক শান্তিময়, এই হোক বসন্তের সূচনাদিনের প্রত্যাশা।