কমবে জ্বালানি তেলের দাম

কমবে জ্বালানি তেলের দাম

শেয়ার করুন

এটিএন টাইমস ডেস্ক:

আগামী দুয়েক মাসের মধ্যেই কমছে জ্বালানি তেলের দাম। কিন্তু কতটা কমতে পারে? সেদিকেই আগ্রহ সংশ্লিষ্টদের। তবে বিশ্লেষকরা বলছেন, বড় জোর দাম কমতে পারে ১০ শতাংশ, খুব বেশি কমানোর সুযোগ নেই। আর দাম কমার সুফল সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছানোও হবে বড় চ্যালেঞ্জ।

দেশে জ্বালানি তেলের দাম এখনো বেশি। বিশেষ করে আন্তর্জাতিক বাজারের তুলনায়। কারণ বিশ্ববাজারে কয়েক বছরে ধরেই তেলের দাম কমতির দিকে । কিন্তু সে তুলনায় ততটা কমেনি দেশের বাজারে। অবশ্য এক দফা দাম কমিয়েও, এখনো লিটার প্রতি ডিজেল ও কেরোসিন ৬৫ টাকা, অকটেন ৮৯ টাকা, পেট্রোল ৮৬ টাকা আর ফার্নেস অয়েল ৪২ টাকা।

সরকার অবশ্য এখন বলছে দাম আরও এক দফা কমাবে। তবে প্রশ্ন হচ্ছে আন্তর্জাতিক বাজারের হিসাবে দেশে দাম কমানোর সুযোগ আছে? বিশ্লেষকরা বলছেন, খুব বেশি নয়। এর কারণও ব্যাখ্যা করলেন তারা।

তারপরও তেলের দাম কমলে মোট দেশজ উৎপাদন বা জিডিপি বাড়বে শূন্য দশমিক ৩ শতাংশ। তৈরি পোশাক রপ্তানি বাড়বে শূন্য দশমিক ৪% আর ভোক্তা চাহিদা বাড়বে শূন্য দশমিক ৬ শতাংশ। জিনিসপত্রের দাম বা মূল্যস্ফীতি কমবে শূন্য দশমিক ২ শতাংশ।উদ্যোক্তাদের আশা, সামগ্রিকভাবে গতি আসবে ব্যবসায়।

এতদিন তেলের দাম না কমার পেছনে সরকারের যুক্তি ছিল, তেল আমদানি কারক সরকারি প্রতিষ্ঠান বিপিসির লোকসান আর দায় দেনা কমানো। কিন্তু এখন পর্যন্ত কতটা সফল হয়েছে বি-পিসি তা পরিষ্কার করার কথাও বলছেন বিশ্লেষকরা।