জাবিতে শিক্ষিকাকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ দুই শিক্ষার্থী বহিষ্কার

জাবিতে শিক্ষিকাকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ দুই শিক্ষার্থী বহিষ্কার

শেয়ার করুন

5465সাভার প্রতিনিধি :

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলায় ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের নারী শিক্ষক নাহরীন ইসলাম খানের গাড়ি পার্কিংকে কেন্দ্র করে ওই শিক্ষককে লাঞ্ছিত করাসহ বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ার অভিযোগে দুই শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

মঙ্গলবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা কমিটির বৈঠকে অভিযুক্ত দুই শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কারের জন্য সুপারিশ করা হয়। পরে সুপারিশটি সিন্ডিকেটের অনুমোদনের জন্য পাঠানো হলে উপাচার্য ফারজানা ইসলাম নিজ ক্ষমতা বলে তাদের সাময়িক বহিষ্কার করেন।

সাময়িক বহিষ্কৃত শিক্ষার্থীরা হলো- আইন ও বিচার বিভাগের ৪৩তম আবর্তনের শেষ বর্ষের ছাত্র আরমানুল ইসলাম খান এবং ৪০তম আবর্তনের নুরদ্দিন মোহাম্মদ সানাউল। সানাউলের ছাত্রজীবন শেষ হওয়ায় বহিষ্কারের সময় তার স্নাতক ও স্নাতকোত্তরের সনদ আটকে রাখার সিদ্ধান্ত নেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

গত শুক্রবার (২৬ জানুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলায়  ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের শিক্ষক নাহরীন ইসলাম খানের গাড়ি পার্কিং নিয়ে শিক্ষার্থী আরমান ও সানাউল বাকবিতণ্ডা হয়। পরে এই ঘটনায় ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের শিক্ষকরা উপাচার্য বরাবর শিক্ষককে লাঞ্ছনা করার অভিযোগ এনে আরমান ও সানাউলের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দেন।