সাতক্ষীরায় ইউপি চেয়ারম্যান হত্যার প্রধান আসামি গণপিটুনিতে নিহত

সাতক্ষীরায় ইউপি চেয়ারম্যান হত্যার প্রধান আসামি গণপিটুনিতে নিহত

শেয়ার করুন

jalilসাতক্ষীরা প্রতিনিধি :

সাতক্ষীরার কালীগঞ্জের কৃষ্ণনগর ইউপি চেয়ারম্যান মোশাররফ হত্যা মামলার প্রধান আসামি ইউপি সদস্য আবদুল জলিল গাইন (৩৮) গণপিটুনিতে নিহত হয়েছে।

এর আগে শনিবার রাত সাড়ে নয়টায় তাকে অস্ত্র উদ্ধারের জন্য সেখানে নিয়ে যাওয়া হলে জনতা তাকে পুলিশের কাছ থেকে জোর করে ছিনিয়ে নেয়। মুহূর্তেই কয়েক হাজার মানুষ  তাকে গণপিটুনি দিয়ে হত্যা করে। এ সময় একাধিক গুলির শব্দ শোনা যায় বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী। কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) হাসান হাফিজুর রহমান এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, চেয়ারম্যান মোশাররফ হত্যার প্রধান আসামি কৃষ্ণনগর ইউপি সদস্য  ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আবদুল জলিলকে গাজীপুরের কালিয়াকৈর থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাকে নিয়ে আসা হয় সাতক্ষীরায়। তিনি জানান জিজ্ঞাসাবাদ শেষে জলিলকে নিয়ে ঘটনাস্থল অস্ত্র উদ্ধারের জন্য  কৃষ্ণনগরে যাওয়া মাত্র হাজার হাজার লোক এসে তাকে ছিনিয়ে নেয়। এ সময় তারা তাকে পিটিয়ে হত্যা করে। তিনি জানান পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কয়েক রাউন্ড  ফাঁকা গুলি করে। ওসি আরও জানান চেয়ারম্যানকে যেখানে হত্যা করা হয়েছিল সেখানেই তাকে জনতা গণপিটুনি দিয়ে হত্যা করে।

উল্লেখ্য যে গত ৮ সেপ্টেম্বর রাতে কৃষ্ণনগর বাজারে যুবলীগ অফিসে বসে থাকাকালে চেয়ারম্যান কেএম মোশাররফ হোসেনকে সন্ত্রাসীরা গুলি করে হত্যা করে। এ ঘটনায় একই ইউপির সদস্য ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আদুল জলিল গাইন ওরফে ডাকাত জলিল ওরফে খুনে জলিলকে প্রধান আসামি করে মামলা করেন নিহতের মেয়ে সাথিয়া পারভিন।

সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার সাজ্জাদুর রহমান জানান ঘটনাস্থলে লাশ ঘিরে রেখেছে পুলিশ । সেখানে এখনও বিক্ষুব্ধ জনতা অবস্থান করছে। তবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে বলে জানান তিনি।