টাঙ্গাইলে তিনদিনব্যাপী ৪র্থ বাংলা কবিতা উৎসব শুরু

টাঙ্গাইলে তিনদিনব্যাপী ৪র্থ বাংলা কবিতা উৎসব শুরু

শেয়ার করুন

Tangail pic 01মো. নাসির উদ্দিন, টাঙ্গাইল:

এপার বাংলা ওপার বাংলার কবিদের মিলন মেলার মধ্য দিয়ে টাঙ্গাইলে শুরু হয়েছে তিনদিনব্যাপী ৪র্থ বাংলা কবিতা উৎসব। এ বছর ৪র্থ বাংলা কবিতা উৎসবে ভারত ও বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে প্রায় চার শতাধিক কবি আংশ গ্রহন করবেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে টাঙ্গাইল শহীদ স্মৃতি পৌর উদ্যানে টাঙ্গাইল সাধারণ গ্রন্থাগারের উদ্যোগে এ অনুষ্ঠানের উদ্ধোধন করা হয়।

বাংলা কবিতা উৎসবের শুরুতেই মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জলন, জাতীয় পতকা উত্তোলন, জাতীয় সংগীত, বেলুন ও শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান খান ফারুক।
Tangail Pic 02
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন টাঙ্গাইল-৫ সদর আসনের সংসদ সদস্য ছানোয়ার হোসেন, ভারতের কবি অমৃত মাইতি, সৈয়দ কওসর জামাল, রণজিৎ দাশ, শ্যামলকান্তি দাশ ও বাংলাদেশের আলী ইমাম, আল মুজাহিদী ও বুলবুল খান মাহবুব। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক খান মোঃ নুরুল আমিন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন টাঙ্গাইল সাধারণ গ্রন্থাগারের সম্পাদক কবি মাহমুদ কামাল। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন খন্দকার নাজিমুদ্দিন।
৪র্থ বাংলা কবিতা উৎসবের ১ম দিনের দ্বিতীয় অধিবেশনে অনুষ্ঠিত হয় ছয় পর্বের কবিতা পাঠ। কবিরা এ পর্বে কবিতা পাঠ করে শুনান। দ্বিতীয় অধিবেশনে রয়েছে ছয় পর্বের কবিতা পাঠ।

৫ জানুয়ারি তিনটি অধিবেশনে কবিতা পাঠ ও ৪র্থ অধিবেশনে কবি ‘উত্তম দাশ : জীবন ও সাহিত্য’ গ্রন্থের পাঠ উন্মোচন ও আলোচনা, ৫ম অধিবেশনে টাঙ্গাইল সাহিত্য সংসদ পুরস্কার প্রদান। এবার ড. আহসান হাবীব মনসুর প্রদত্ত এম এ রাজ্জাক স্মৃতি পুরস্কার পাচ্ছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারম্যান ড. সুধাংশু শেখর রায় ও ডা. সাইফুল ইসলাম স্বপন প্রদত্ত ভাষাসৈনিক শামসুল হক স্মৃতি পুরস্কার পাচ্ছেন ইতিহাসবিদ ড. হাবীবুল্লাহ বাহার।
Tangail pic 03৬ জানুয়ারি দুইটি অধিবেশনে কবিতা পাঠ, তৃতীয় অধিবেশনে সংস্কৃতিক হিতৈষী ‘ফজলুর রহমান খান ফারুক : জীবন ও কর্ম’ গ্রন্থের পাঠ উন্মোচন ও আলোচনা, চতুর্থ অধিবেশনে অরণি পুরস্কার প্রদান। কবি বুলবুল খান মাহবুব প্রদত্ত আব্দুল করিম খান স্মৃতি পুরস্কার (২০১৬) পাচ্ছেন কবি বিমল গুহ ও আব্দুল করিম খান স্মৃতি পুরস্কার (২০১৭) পাচ্ছেন কবি ফারুক মাহমুদ এবং ভাষাসৈনিক সোফিয়া খান পুরস্কার (২০১৬) পাচ্ছেন ভারতের কবি তপন বন্দোপাধ্যায় ও ভাষাসৈনিক সোফিয়া খান পুরস্কার (২০১৭) পাচ্ছেন কথাসাহিত্যিক নলিনী বেরা। সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন প্রধান মন্ত্রীর মুখ্য সচিব কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী। জেলা প্রশাসক খান মো. নুরুল আমিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাপনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান।

উৎসবের বিষয়ে গ্রন্থাগারের সম্পাদক মাহমুদ কামাল জানান, বাংলা কবিতা উৎসবের পরিধি ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে। এবার হলরুম থেকে বেরিয়ে খোলা মাঠ পৌরউদ্যানে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আশা করি কবিধাম টাঙ্গাইলে তিনটি দিন কবির শহরে পরিণত হবে।

এর আগে গত ২০০৬, ২০১০ ও ২০১৫ সালে ‘বাংলা কবিতা উৎসব’ টাঙ্গাইলে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২০০২ সালে অনুষ্ঠিত হয়েছে সত্তর দশকের কবিদের নিয়ে অনুষ্ঠান। প্রতিটি অনুষ্ঠানে ভারতের কবিদের অংশগ্রহণ ছিল উল্লেখযোগ্য। বাংলা কবিতা উৎসব মানেই কবিদের মহোৎসব। এত কবির উপস্থিতি ঢাকাতো নয়ই দেশের কোনও জেলাতেই হয় না। এ মন্তব্য অংশগ্রহণকারী কবিদের। টাঙ্গাইল হচ্ছে কবির শহর। কবি আব্দুল্লাহ আবু সায়ীদ টাঙ্গাইলকে বলেছেন ‘কবিধাম।’ এ সব অনুষ্ঠানের পেছনে যার অবদান সবচেয়ে বেশি তিনি হলেন টাঙ্গাইল জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান খান ফারুক।