কালজয়ী মূকাভিনেতা চার্লি চ্যাপলিনের মৃত্যুবার্ষিকী

কালজয়ী মূকাভিনেতা চার্লি চ্যাপলিনের মৃত্যুবার্ষিকী

শেয়ার করুন

photo-1429180375এটিএন টাইমস ডেস্ক :

মূকাভিনয়ের মাধ্যমে অগণিত মানুষের হাসির খোরাক হয়ে জায়গা করে নেয়া স্যার চার্লেস স্পেন্সার চার্লি চ্যাপলিনের মৃত্যুবার্ষিকী সোমবার।

চার্লি চ্যাপলিনের জন্ম ১৮৮৯ সালের ১৬ এপ্রিল ইংল্যান্ডের দক্ষিণ লন্ডনে। তার বাবার নাম চার্লস চ্যাপলিন আর মা হানা চ্যাপলিন। তার শৈশব কাটে খুবই দুরবস্থার মধ্যে। বেঁচে থাকার জন্য চার্লি মুদি দোকানে, ডাক্তারখানায়, কাচের কারখানা, রঙের দোকান এমনকি মানুষের বাড়িতে বাসন মাজার কাজও করেছেন। মায়ের হাত ধরেই চার্লির অভিনয়ে হাতেখড়ি। ১৮৯৮ সালে নয় বছর বয়সে চার্লি একটি নাচের দলে যোগ দেন। এরপর যুক্ত হয়ে পড়েন কমেডিয়ান দলের সঙ্গে। পাশাপাশি করতেন মূকাভিনয়। ১৯১৩ সালে চার্লি ইংল্যান্ড ছেড়ে পাড়ি জমান আমেরিকায়। ঐ বছরেই নিউইর্য়ক মোশন কোম্পানি সাপ্তাহিক ১৫০ ডলারের ভিত্তিতে চার্লির সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হন। পরের বছরই বেশ কয়েকটি ছবি মুক্তি পায় চার্লির। রাতারাতি পরিচিত মুখ হয়ে ওঠেন তিনি। ১৯২৫ সালে নিজের প্রযোজিত ছবির জন্য পান অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ড।

চার্লি চ্যাপলিনের ৭৫ বছরের দীর্ঘ অভিনয় জীবনে তিনটি বাদে বাকি সব চলচ্চিত্রই ছিল নির্বাক। চলচ্চিত্রে তিনি প্রথম কথা বলেন ১৯৪০ সালে, দ্য গ্রেট ডিকটেটর চলচ্চিত্রে। ১৯৭৭ সালের ২৫ ডিসেম্বর চার্লি চ্যাপলিন প্রায় নিঃসঙ্গ অবস্থায় মারা যান সুইজারল্যান্ডে।